Tuesday,  Sep 18, 2018   03:56 AM
Untitled Document Untitled Document
সংবাদ শিরোনাম: •লক্ষ্মীপুরে মাদক ব্যবসায়ীর মুক্তির দাবিতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন, বিপাকে শিক্ষক •রামগঞ্জে মাদ্রাসায় শিক্ষার্থীদের বলাৎকার; অভিভাবকগণ আতঙ্কে •রামগঞ্জে ক্ষুদে মেসি: ৪ ম্যাচে ৯ গোল! •পশুর সাথে শত্রুতা- অল্পের জন্য রক্ষা! •একজন যোগ্য শিক্ষকের হাত ধরে তৈরি হয় একজন সু-নাগরিক...... ড. আনোয়ার হোসেন খাঁন •রামগঞ্জে রমজান উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত •লক্ষ্মীপুরে রেড ক্রস ও রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত
Untitled Document

রামগঞ্জে প্রানে হত্যার ভয় দেখিয়ে স্ত্রী বড় বোনকে ধর্ষণ; স্বামী পরিত্যক্তা আয়েশা ঘুরছেন দ্বারে দ্বারে

তারিখ: ২০১৮-০৫-০৫ ১২:৩৬:৪৮  |  ১৭৫ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

রামগঞ্জ, ৫ মে: রামগঞ্জে বিয়ের প্রলোভন ও প্রানেহত্যার ভয় দেখিয়ে স্ত্রীর বড় বোন আয়েশা বেগমকে ছোট বোনের স্বামী আমিনুল্লাহ কর্তৃক ধর্ষণ করার ঘটনায় জানাজানি হওয়ায় পলাতক রয়েছে ধর্ষণকারী। স্থানীয় কয়েকজন ব্যক্তি ঘটনাটি ভীন্নখাতে ধাবিত করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে। এদিকে ৬মাসের অন্তসত্বা আয়েশা বেগম স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা ও ওয়ার্ড কাউন্সিলরসহ সমাজপতিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরলেও কোন সু-বিচারের আশ্বাস কেউই তাকে দিচ্ছেন না। উপরুন্ত কথিত শালিসগণ দফায় দফায় বৈঠক করে স্থানীয় নিরীহ লোকদের ফাঁসানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।
ঘটনাটি ঘটেছে রামগঞ্জ পৌর ৫নম্বর ওয়ার্ড নন্দনপুর গ্রামে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পশ্চিম সোনাপুর গ্রামের (বাঘের ভিতর) অটো রিক্সাচালক আমিনুল্লাহ দীর্ঘদিন থেকে স্ত্রী সন্তানসহ নানা শশুরবাড়ী নন্দনপুর গ্রামের মমিন পাটওয়ারী বাড়ীতে বসবাস করে  আসছেন।
এদিকে আমিনুল্লাহর স্ত্রী সেলিনা বেগমের বড় বোন স্বামী পরিত্যক্তা আয়েশা বেগম এক ছেলেসহ বিগত ৫ বছর যাবত একই ঘরে বসবাস করে আসছেন।
স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর দেলোয়ার হোসেনসহ বাড়ীর লোকজনদের উপস্থিতিতে ধর্ষিত আয়েশা বেগম জানান, গত মাস সাতেক পূর্বে একদিন গভীর রাতে ছোট বোনের স্বামী আমিনুল্লাহ তাকে প্রানে হত্যার ভয় দেখিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।
ধর্ষণের ঘটনার কয়েকদিন পর তিনি বুঝতে পারেন তিনি গর্ভবতি হয়ে পড়েছেন। বিষয়টি আমিনুল্লাহকে জানালে, আমিনুল্লাহ এবার হুমকি দেয় ঘটনাটি কাউকে জানালে তার ছেলে জীবন (৬) কে হত্যা করা হবে। কিন্তু বাড়ীর অন্য মহিলারা আয়েশা বেগমের শারিরীক পরিবর্তন দেখে জানতে চাইলে ঘটনাটি প্রকাশ পায়। ঘটনাটি জানাজানির পরপরই অভিযুক্ত আমিনুল্লাহ গা-ডাকা দেয়।
স্থানীয়ভাবে কয়েকদফা বিষয়টি সমাধানে ওয়ার্ড কাউন্সিলর দেলোয়ার হোসেন এলাকার গণ্যমান্য লোকদের নিয়ে বসার পর আয়েশা বেগমকে একই বাড়ীর শানু বেগমের ঘরে রাখার জন্য বলা হয়। কিন্তু যুবলীগ কর্মী পাশ্ববর্তি হাজী বাড়ীর রিপনসহ কয়েকজন অর্থলোভী লোক গ্রামের নীরিহ মানুষকে ফাঁসানোর চেষ্টা অব্যাহত রাখে। আয়েশা বেগমকে চাপ প্রয়োগ করলেও তিনি তাতে রাজি না হওয়ায় আয়েশা বেগমকে উক্ত বাড়ী থেকে বের করে দিতে শানু বেগমকে দুই দফায় মারধর করে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
তবে এ ব্যাপারে যুবলীগ কর্মী রিপন বিষয়টি অস্বীকার করে জানান, আজ শনিবার এব্যপারে শালিসি বৈঠক হবে। এখন যদি আয়েশা বেগম লাপাত্তা হয়ে যায় তাহলে? এ কারনে আমি শানু বেগমকে বকাঝকা করেছি।
স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর দেলোয়ার হোসেন জানান, আমি বলছি আগে অভিযুক্ত আমিনুল্লাহকে হাজির করতে। হাজির করার পর বিচার ব্যবস্থা। তবে এ ধরনের বিচার শালিসি বৈঠকে করা যায় কি না সে ব্যাপারে তিনি কোন মন্তব্য করেন নি। তবে আজ রাতে এ ব্যাপারে বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•রামগঞ্জে ক্ষুদে মেসি: ৪ ম্যাচে ৯ গোল! •পশুর সাথে শত্রুতা- অল্পের জন্য রক্ষা! •এমপি আউয়ালকে দলীয় পদ থেকে অব্যাহতি! •আইসক্রীম খাওয়ার লোভ দেখিয়ে ধর্ষণ শেষে শিশু নুশরাত হত্যা; মূল হত্যাকারী রুবেল আটকসহ আটক ২ •একমাত্র মেয়ের চিকিৎসায় ঘরভিটি বিক্রি করলেন রিক্সাচালক বাবা •লক্ষ্মীপুরে দূর্যোগ প্রশমন দিবসে র‌্যালী •লক্ষ্মীপুরে মুনছুর আহাম্মদ উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক নিয়োগে অনিয়মের অভিযোগ
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

  • Top
    Untitled Document