Thursday,  Sep 20, 2018   2 PM
Untitled Document Untitled Document
সংবাদ শিরোনাম: •লক্ষ্মীপুরে মাদক ব্যবসায়ীর মুক্তির দাবিতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন, বিপাকে শিক্ষক •রামগঞ্জে মাদ্রাসায় শিক্ষার্থীদের বলাৎকার; অভিভাবকগণ আতঙ্কে •রামগঞ্জে ক্ষুদে মেসি: ৪ ম্যাচে ৯ গোল! •পশুর সাথে শত্রুতা- অল্পের জন্য রক্ষা! •একজন যোগ্য শিক্ষকের হাত ধরে তৈরি হয় একজন সু-নাগরিক...... ড. আনোয়ার হোসেন খাঁন •রামগঞ্জে রমজান উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত •লক্ষ্মীপুরে রেড ক্রস ও রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত
Untitled Document

১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপ-কেন্দ্র স্থাপনে ভূমি অধিগ্রহন: রামগঞ্জে ক্ষতিগ্রস্থ ভূমি মালিকদের ক্ষতিপূরন আদায়ে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ

তারিখ: ২০১৮-০৪-০৪ ১৮:২১:৫৫  |  ১৬৭ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

আবু তাহের, রামগঞ্জ: ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপ-কেন্দ্র স্থাপনের জন্য এনার্জি প্যাক বাংলাদেশ লিঃ এর অধিগ্রহনকৃত প্রকৃত ভূমির মালিকদের ক্ষতিপূরন আদায় ও তাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছেন ক্ষতিগ্রস্থ ভূমি মালিকগণ। আজ বুধবার দুপুরে রামগঞ্জ পৌর সোনাপুর কলচমা গ্রামে নির্মানাধীন ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপ-কেন্দ্রের সামনে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়। পরে রামগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট দাবী সম্বলিত স্মারকলিপি পেশ করেন স্থানীয় ভূমি মালিকগণ।
জানা যায়, ২০১৩-২০১৪ ইং সনে ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপ-কেন্দ্র স্থাপনের লক্ষে পাওয়ার গ্রীড কোম্পানী অব বাংলাদেশ (এনার্জি প্যাক বাংলাদেশ লিঃ) ৫.০৩ একর জমি অধিগ্রহন করে। প্রায় ১শ কোটি টাকার অধিক ব্যয়ে ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপ-কেন্দ্র নির্মানের কাজ শুরু হয়। এসময় জমিদাতাদের সাথে ভিটি ৬০, জমি ৩৩ ও পুকুরের জমি ৯৮হাজার টাকা প্রতি শতাংশ করে অধিগ্রহন করা হয়, এবং বেশ কিছু জমির মালিককে অর্ধেক টাকা পরিশোধও করা হয়।
নির্মানাধীন পাওয়ার গ্রীডের কাজ সম্পূর্ণ হওয়ার কয়েকমাস বাকী সে মুহুর্তে একই এলাকার লুৎফর রহমান প্রকাশ এল রহমান, মানিক হোসেন, সিরাজ মিয়া ও জহির ব্যপারী লক্ষ্মীপুর জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে তাদের অধিগ্রহনকৃত ভূমিতে তাদের মালিকানা দাবী করে একটি মামলা দায়ের করে। উল্লেখিত বিষয়ে জটিলতা সৃষ্টি হওয়ায় জমির প্রকৃত মালিক ফারুক হোসেন, আমির হোসেন, মোস্তফা মিয়া, মফিজ ব্যাপারী, মোঃ হোসেন, বজলুল হক, কাশেম ব্যাপারী ও আক্কাছ ব্যাপারীসহ অনেকের বাকী টাকা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ মামলার নিস্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত আটকে রাখার ঘোষণা দেয়। এতে করে স্থানীয় ভূমির মালিকগণ চোখেমুখে অন্ধকার দেখে। রামগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের টেবিলে কয়েকদফা বসলেও কোন সমাধান হয়নি।
ক্ষতিপূরুন আদায়ের লক্ষে উক্ত ভূমির মালিকরা পরিবারের সদস্যদের নিয়ে মানববন্ধন কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেন।
মানববন্ধনে বিভিন্ন বক্তারা জানান, জমি অধিগ্রহন করায় আমরা পথে বসেছি। কিছু টাকা দেয়া হয়েছে, বাকী টাকা আমাদের দিতে গড়িমসি করছে কর্তৃপক্ষ। অথছ যারা সম্পত্তির মালিক নয় তারা মিথ্যা মামলা দায়ের করায় আমরা হয়রানীর শিকার হচ্ছি।
এ ব্যপারে পাওয়ার গ্রীড কোম্পানী অব বাংলাদেশ এর ইঞ্জিনিয়ার সুমন আহম্মেদ জানান, আমরা জমি অধিগ্রহনের টাকা লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসককে দিয়ে দিয়েছি। হটাৎ মামলাটি করায় জমির মালিকদের বাকী পাওনা টাকা দেয়া বন্ধ রাখা হয়েছে। শুনেছি মামলা নিস্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত টাকা দেয়া হবে না। এব্যপারে জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও পৌর মেয়র অবগত আছেন।
রামগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু ইউসুফ জানান, আমরা সমাধানে কয়েকবার বসেছি। উভয়পক্ষের সই স্বাক্ষর রেখে সমাধানে আসার চেষ্টাও ব্যর্থ হয়েছে। আমি জেলা প্রশাসক মহোদয়ের সাথে বসে বিষয়টি দ্রুত সমাধানের চেষ্টা করবো।
নিউজ: আবু তাহের।



এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•রামগঞ্জে মাদ্রাসায় শিক্ষার্থীদের বলাৎকার; অভিভাবকগণ আতঙ্কে •রামগঞ্জে রমজান উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত •রামগঞ্জে শান্তিপূর্ন নির্বাচনের দাবিতে প্রার্থীর সংবাদ সম্মেলন • রামগঞ্জ উপজেলা বিএনপি: একের পর বহিস্কার অব্যহতি কোনঠাসা তৃণমূল •রামগঞ্জে কাউন্সিলরের নেতৃত্বে সম্পত্তি দখল •রামগঞ্জে সাংবাদিকদের সাথে বিআরডিবি চেয়ারম্যান প্রার্থী এমরান হোসেন বাচ্চুর মতবিনিময় •রামগঞ্জে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে সন্ত্রাসী দিয়ে সম্পত্তি দখল
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

  • Top
    Untitled Document