Thursday,  Sep 20, 2018   2 PM
Untitled Document Untitled Document
সংবাদ শিরোনাম: •লক্ষ্মীপুরে মাদক ব্যবসায়ীর মুক্তির দাবিতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন, বিপাকে শিক্ষক •রামগঞ্জে মাদ্রাসায় শিক্ষার্থীদের বলাৎকার; অভিভাবকগণ আতঙ্কে •রামগঞ্জে ক্ষুদে মেসি: ৪ ম্যাচে ৯ গোল! •পশুর সাথে শত্রুতা- অল্পের জন্য রক্ষা! •একজন যোগ্য শিক্ষকের হাত ধরে তৈরি হয় একজন সু-নাগরিক...... ড. আনোয়ার হোসেন খাঁন •রামগঞ্জে রমজান উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত •লক্ষ্মীপুরে রেড ক্রস ও রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত
Untitled Document

লক্ষ্মীপুরে পুুলিশের তালিকাভূক্ত শীর্ষ সন্ত্রাসী লাদেন মাসুমের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার, ৪টি আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলি উদ্ধার

তারিখ: ২০১৭-১১-০২ ১০:২৫:১৫  |  ৪৬৭ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

লক্ষ্মীপুর, আনিস কবীর, ২নভেম্বর:

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার বালাইশপুরের বটেরদিঘীর পাড় এলাকা থেকে পুলিশের তালিকাভূক্ত শীর্ষ সন্ত্রাসী, হত্যা ও ডাকাতিসহ ২৮ মামলার আসামী মাসুম বিল্লাহ ওরফে লাদেন মাসুমের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করছে পুলিশ। এসময় ঘটনাস্থল থেকে দুইটি দু-নলা বন্দুক, দুইটি এলজি, ১১ রাউন্ড গুলি ও ৩০টি হাইড্রোলিক ককটেল উদ্ধার করা হয় বলে দাবী করছে পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার ভোর রাতে তার গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করা হয়।
দুই সন্ত্রাসী বাহিনীর গোলাগুলিতে বাহিনী প্রধান মাসুম বিল্লাহ ওরফে লাদেন মাসুম গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয় বলে দাবী পুলিশের।
তবে পরিবারের দাবী, যুবদলের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিল মাসুম। রাজনীতি করার কারনে তার বিরুদ্ধে এতগুলো মামলা রয়েছে। গত রোববার ঢাকার গুলিস্তান থেকে তাকে আটক করে আইনশৃংখলা বাহিনী। পুলিশের গুলিতে মাসুম নিহত হয় বলে দাবী করেন নিহতের স্ত্রী।
পুলিশ জানায়, বাহিনী প্রধান মাসুম বিল্লাহ ওরফে লাদেন মাসুম পুলিশের তালিকাভূক্ত শীর্ষ সন্ত্রাসী। তার বিরুদ্ধে হত্যা, ডাকাতি, চাঁদাবাজিসহ সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের অভিযোগে সদর ও চন্দ্রগঞ্জ থানাসহ বিভিন্ন স্থানে ২৮টি মামলা রয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে মাসুম বিল্লাহ পলাতক রয়েছে। তাকে ধরতে পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালায়। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে তিনটার দিকে সে ঢাকা থেকে এলাকায় আসে। এসময় বটের দিঘীরপাড় এলাকায় শাহাদাৎ বাহিনীর সাথে তার বাহিনীর সন্ত্রাসীদের গোলাগুলি হয়। গোলাগুলির খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বাগানে মাসুম বিল্লাহস ওরফে লাদেন মাসুমের গুলিবিদ্ধ লাশ পড়ে থাকতে দেখে। পরে তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।
নিহত মাসুম সদর উপজেলার আবিরনগর এলাকার মাও.হাফিজ উল্যাহর ছেলে।
চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মোক্তার হোসেন জানান, দুই সন্ত্রাসী বাহিনীর গোলাগুলিতে বাহিনী প্রধান মাসুম বিল্লাহ ওরফে লাদেন মাসুম নিহত হয়। ঘটনাস্থল থেকে দুইটি বন্দুক, দুইটি এলজি, ১১ রাউন্ড গুলি ও ৩০টি ককটেল উদ্ধার করা হয়। তার বিরুদ্ধে চন্দ্রগঞ্জ থানাসহ বিভিন্ন থানায় হত্যা,ডাকাতি,চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের অভিযোগে ২৮টি মামলা রয়েছে।

নিউজ: আনিস কবীর।


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•রামগঞ্জে ক্ষুদে মেসি: ৪ ম্যাচে ৯ গোল! •পশুর সাথে শত্রুতা- অল্পের জন্য রক্ষা! •রামগঞ্জে প্রানে হত্যার ভয় দেখিয়ে স্ত্রী বড় বোনকে ধর্ষণ; স্বামী পরিত্যক্তা আয়েশা ঘুরছেন দ্বারে দ্বারে •এমপি আউয়ালকে দলীয় পদ থেকে অব্যাহতি! •আইসক্রীম খাওয়ার লোভ দেখিয়ে ধর্ষণ শেষে শিশু নুশরাত হত্যা; মূল হত্যাকারী রুবেল আটকসহ আটক ২ •একমাত্র মেয়ের চিকিৎসায় ঘরভিটি বিক্রি করলেন রিক্সাচালক বাবা •লক্ষ্মীপুরে দূর্যোগ প্রশমন দিবসে র‌্যালী •লক্ষ্মীপুরে মুনছুর আহাম্মদ উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক নিয়োগে অনিয়মের অভিযোগ
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

  • Top
    Untitled Document