Friday,  Oct 19, 2018   9 PM
Untitled Document Untitled Document
সংবাদ শিরোনাম: •লক্ষ্মীপুরে মাদক ব্যবসায়ীর মুক্তির দাবিতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন, বিপাকে শিক্ষক •রামগঞ্জে মাদ্রাসায় শিক্ষার্থীদের বলাৎকার; অভিভাবকগণ আতঙ্কে •রামগঞ্জে ক্ষুদে মেসি: ৪ ম্যাচে ৯ গোল! •পশুর সাথে শত্রুতা- অল্পের জন্য রক্ষা! •একজন যোগ্য শিক্ষকের হাত ধরে তৈরি হয় একজন সু-নাগরিক...... ড. আনোয়ার হোসেন খাঁন •রামগঞ্জে রমজান উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত •লক্ষ্মীপুরে রেড ক্রস ও রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত
Untitled Document

বরগুনায় বর্বরতা...

তারিখ: ২০১৭-০৮-২৫ ১২:১৫:৫৩  |  ৪৪২ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

আমিনুল ইসলাম
সহকারী উপজেলা শিক্ষা কর্মকতা
রামগঞ্জ-লক্ষ্মীপুর

মানুষের জন্য সবচেয়ে কঠিন কাজ হলো “মানুষ” হওয়া। সত্যিই তাই। বরগুনা জেলার বেতাগী উপজেলার হোসনাবাদ ইউনিয়নে স্কুল শিক্ষিকার যৌন নির্যাতনের ঘটনা আমাদের এক নির্মম এক প্রশ্নবোধক চিহ্নের সামনে দাঁড় করিয়েছে।
নিপীড়নকারী সেই ৬যুবক দেখতে হয়তো মানুষের মতই ছিলো। হয়তো বা তারা মানুষ না অন্য কিছু ছিলো।
স্বামী বিবেকানন্দ শিক্ষার সংজ্ঞায় বলেছেন,
নিছের ইচ্ছা শক্তির বেগ’কে নিয়ন্ত্রন করার কৌশলই হলো শিক্ষা।
আর জীবনব্যাপী নিজেকে নিয়ন্ত্রন করার কৌশল সর্ম্পকে যিনি জ্ঞান দান করেন, তিনি শিক্ষক।
অথছ কি নির্মম লজ্জাজনক ঘটনা সেই সুমহান জ্ঞানের অধিকারী শিক্ষিকা নিজেকে পশুপ্রবৃত্তির হাত থেকে রক্ষা করতে পারলেন না।
নিজেকে মোমবাতির মতো জ্বালিয়ে অন্যকে যারা আলো দেয় তারা শিক্ষক, অথছ তার জীবন আজ অনন্ত অন্ধকার।
‘প্রতিদিন আমাদের শিক্ষকরা কচি-কোমল ফুলের মতো শিশুদের দেশের প্রতি, সমাজের প্রতি আনুগত্য থাকার শপথ করান।
দৈনিক সমাবেশে সমবেত স্বরে গেয়ে উঠে
“ মা তোর বদনখানি মলিন হলে আমি নয়ন জলে ভাসি”
মায়ের মতো সোনার দেশের কিছু বিকৃত মানুষের লালসার কারনে আজ বাংলাদেশের শত সহ¯্র মুখ-নত, কলঙ্কিত।
আজকের এই আলোকিত পৃথিবীর অন্যতম সামাজিক প্রতিষ্ঠান হলো বিদ্যালয়। যেখানে সৃজন, সৃষ্টি, রূপান্তরের শিক্ষা দেয়া হয়। অথছ এই পবিত্র সামাজিক প্রতিষ্ঠানে আশ্রয় গ্রহন করার পরও সেই শিক্ষিকা বোন তার সম্ভ্রম রক্ষা করতে পারেনি।
এ পি জে আবুল কালাম বলেছেন,
একটি সুন্দর সমাজ বির্নিমানে তিনজন সামাজিক ব্যাক্তি প্রার্থক্য গড়ে দেয়। এরা হলেন, বাবা-মা ও শিক্ষক।
আমাদের সুশীল ব্যাক্তিরা বলে থাকেন, শিক্ষকতা কোন পেশা নয়-সেবা।
আজ আমাদের সেবাদানকারী শিক্ষকরা যখন লাঞ্চিত হন, সম্ভ্রমহানীর শিকার হন, নিপিড়ীত হন, তখন সমাজে সুশীল সমাজ নিরবতা পালন করে নিজেদের মহৎ প্রমান করেন।
তবুও বরগুনার এ বর্বর ঘটনায় আমরা বিচারহীনতার দৃষ্টান্ত দেখতে চাই না, বিচার চাই, নিপীড়নকারীদের শাস্তি চাই।
রবিন্দ্রনাথ ঠাকুর বলেছেন, খবধৎহরহম ঃযৎড়ঁময ফবষরমযঃ (আনন্দের মাধ্যমে শিক্ষা) এ কথা বলতে গিয়ে বলেছেন,
আনন্দহীন শিক্ষা প্রকৃত শিক্ষা নয়। আমরাও তাই বিশ্বাস করি এবং ধারন করি।
পাশাপাশি এটাও বিশ্বাস করি,
ভীতিকর ও অনিরাপদ পরিবেশে প্রকৃত অর্থে শিক্ষাদান কার্যক্রম সম্ভব নয়।
বিশ্বাস ভঙ্গের কষ্ট নয়’ নিরাপদ, ভীতিহীন ও আনন্দময় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চাই।

বার বার আমরা নিজেদের বিবেকের কাঠগড়ায় দাঁড় করাতে চাই না।


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•নুশরাত হত্যার রহস্য উন্মোচন; রামগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জকে সংবর্ধণা •স্বামীর চিকিৎসা ব্যয়ভার বহন করতে না পেরে স্বামীর মৃত্যু কামনা •একজন সফল খামারী ডাক্তার বিল্লাল •রামগঞ্জে অধিকাংশ সড়কের বেহালদশা সাধারনের দুর্ভোগ চরমে
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

  • Top
    Untitled Document