Thursday,  Sep 20, 2018   2 PM
Untitled Document Untitled Document
সংবাদ শিরোনাম: •লক্ষ্মীপুরে মাদক ব্যবসায়ীর মুক্তির দাবিতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন, বিপাকে শিক্ষক •রামগঞ্জে মাদ্রাসায় শিক্ষার্থীদের বলাৎকার; অভিভাবকগণ আতঙ্কে •রামগঞ্জে ক্ষুদে মেসি: ৪ ম্যাচে ৯ গোল! •পশুর সাথে শত্রুতা- অল্পের জন্য রক্ষা! •একজন যোগ্য শিক্ষকের হাত ধরে তৈরি হয় একজন সু-নাগরিক...... ড. আনোয়ার হোসেন খাঁন •রামগঞ্জে রমজান উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত •লক্ষ্মীপুরে রেড ক্রস ও রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত
Untitled Document

অনলাইন পত্রিকাগুলো এক সময় সবচেয়ে বেশী জনপ্রিয় হয়ে উঠবে

তারিখ: ২০১৬-০৬-২১ ২০:৪৮:৪৩  |  ১৫২৫ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

এমরান হোসাইন:

প্রযুক্তির কল্যাণে মাত্র এক দশকের ব্যবধানে বিশ্ব অনেকদূর এগিয়ে গেছে। বিশ্বকে এখন বলা হচ্ছে গ্লোবাল ভিলেজ। বিশ্বের একপ্রান্ত থেকে আরেক প্রান্তের সকল খবর এখন মানুষ হাতের মুঠোয় নিয়ে ঘুরছে। এর সাথে সামঞ্জস্যতা রেখেই বেড়েছে সচেতনতা। সচেতন মানুষের পিপাসা মেটাতে এবং গণতন্ত্রের প্রতি মানুষের অগাধ আস্থা থেকেই বেড়েছে গণমাধ্যমের কদর। যে কোনো বয়সের প্রতিটি মানুষ এখন ঘুম থেকে উঠেই জেনে নেওয়ার চেষ্টা করছে কোথায় কি ঘটলো। অথবা রাজনৈতিক পরিস্থিতি কি। আমাদের পঁচনশীল সমাজে দুর্নীতি বাড়লেও তার সাথে পাল্লা দিয়েই বেড়েছে দুর্নীতির প্রতি মানুষের তীব্র ঘৃণা। তাই শক্তিশালী গণমাধ্যম এখন মানুষের চাহিদারই প্রতিশ্রুতি এবং সময়ের দাবি।

অনলাইন গণমাধ্যমের ধারণা বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে নেহায়েত নতুন হলেও শুরু থেকেই এই মাধ্যমটি ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে। আর এ কথা নিদ্বির্ধায় বলা যায় অন্য যে কোনো গণমাধ্যমের তুলনায় অনলাইন পত্রিকাগুলো এক সময় সবচেয়ে বেশী জনপ্রিয় হয়ে উঠবে। এর কারণ প্রথমত টেলিভিশন ও পত্রপত্রিকার তুলনায় অনেক দ্রুততার সাথে এই মাধ্যমে যে কোনো খবর তাৎক্ষণিক প্রকাশ করতে পারে। এই মাধ্যমে একটি সংবাদ বা তথ্য সংগ্রহ এবং প্রকাশ পর্যন্ত যে খরচ। এর পর তা কোটি মানুষের কাছে পৌঁছুতেও আর কোনো বাড়তি খরচের প্রয়োজন হয়না। কাজেই পাঠকের ক্ষেত্রে এর কোনো সীমাবদ্ধতা নেই। একটি পত্রিকার কপি সংখ্যা যত বেশী ছাপা হবে ততই খরচ বাড়বে, তেমনি একটি টেলিভিশন সংবাদও সব জায়গায় পৌঁছুতে স্যাটেলাইন লাইন, নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ, যুৎসই জায়গা ইত্যাদি নানা সীমাবদ্ধতা থাকে,  থাকে সময় সীমাবদ্ধতাও। কারণ ২৪ ঘন্টার সীমাবদ্ধতায় বা নির্ধারিত সময়ের মধ্যে টেলিভিশনকে তার প্রচার সময় সীমাবদ্ধ রাখতে হয়। তেমনি পত্রিকার ক্ষেত্রেও তাদের পৃষ্ঠা সীমাবদ্ধতার কারণে ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও বা খবরের গুরুত্ব থাকা সত্ত্বেও সব খবর পাতায় ছাপার অক্ষরে তুলে আনতে পারে না। অনলাইন পত্রিকা বা ওয়েব পোর্টাল এই সকল সীমাবদ্ধতার উর্দ্ধে। একটি অনলাইন পত্রিকা তার লোকবলের ক্ষমতা অনুযায়ী একদিনে যত খুশি ততগুলো সংবাদ প্রকাশ করতে পারে। তার স্পেসের যে সামান্য প্রতিবন্ধকতা রয়েছে তা অত্যন্ত গৌণ। একবার এই সংবাদ প্রচার হয়ে গেলে বিশ্বের যে কোনো প্রান্ত থেকে যে কোনো মানুষ চাই কি একশ’ কোটি মানুষ একদিনে একটি সংবাদ উপভোগ করতে পারে। একেবারে অঁজ পাড়া গাঁয়ে বসে অথবা তিলোত্তমা শহরের অট্টালিকায় বসে, এমনটি সাগরের তলদেশে বসেও এখন অনলাইনে ব্রাউজ করা যাচ্ছে। শুধু মোবাইল নেটওয়ার্ক বা ইন্টারনেট কানেকশন আর একটি সেল ফোন দরকার হয়। তেমনি কেউ কোনো সংবাদ প্রকাশ করতে চাইলে কোনো রাজনৈতিক বা সামাজিক সংগঠন তাদের কর্মসূচি বা ভালো কোনো উদ্যোগের খবর প্রচার করতে চাইলে রেডিও টেলিভিশন বা পত্রপত্রিকার ক্ষেত্রে নানা সীমাবদ্ধতা থাকে। অনেক সময় খবরটি প্রচার হলেও ছবি দেওয়া যায়না। আবার ছবি ছাপা হলেও তা সাদা কালোয় ঝাপসা আকারে আসে। কিন্তু অনলাইনে খবরের গুরুত্ব আর ছাপার যোগ্য হলেই তা একেবারে সমান গুরুত্বের সাথে একই মানে প্রচার করা যায়। এতে সমাজের কোনো সংবাদ পঁচে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকেনা। সবচেয়ে বড় কথা একটি সংবাদ প্রচারের সাথে সাথে তা সারাজীবনের জন্য সারা বিশ্বে সংরক্ষিত হয়ে যায়। আর কোনো সংবাদের বিষয়ে কারো দ্বিমত, ভিন্নমত, বা মন্তব্য থাকলে সাথে সাথেই সংবাদটি সম্পর্কে মতামত প্রদান করা যায় এবং সম্পাদকের দপ্তরে এটা পৌঁছুতে কোনো বাড়তি সময় ব্যয় হয়না। এমনি অসংখ্য সুবিধা রয়েছে এই মাধ্যমের । এই মাধ্যমের সাথে যুক্ত থাকতে পারলে যেমন পাঠক তৃপ্ত, তেমনি সাংবাদিকও তৃপ্ত সমানভাবে সংবাদের উৎস বা যারা সংবাদ হবেন তারাও তৃপ্ত। এসব কারণে অল্প দিনেই এই মাধ্যমে সারা বিশ্বে দ্রুততার সাথে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। আমরা বলতে পারি এই মাধ্যম সহজেই দেশ বিদেশে অবস্থান করা সকল ানুষের মানুষের সেতু বন্ধন হয়ে উঠতে যাচ্ছে। লক্ষ্মীপুরের যে মানুষটি মধ্য প্রাচ্য বা লন্ডনে আছে তিনি একসময় চাইলেও তার এলাকার ছোটখাট খবরগুলো জানতে পারতেন না। এখন প্রতিদিন তিনি সুদুর প্রবাসে বসে অন্তত একবার দশ মিনিট ব্যয় করে দিনের আলোর মতো লক্ষ্মীপুর দেখতে পারেন। আমদের শুধু তাদের কাছে ওয়েব ঠিকানাটি পৌঁছে দিতে হবে।

প্রযুক্তি আমাদের যে সুযোগ এনে দিয়েছে আসুন আমরা তার সদব্যবহার করি। বাজে ব্লগে সময় ব্যয় না করে এলাকার সমস্যা সম্ভাবনা বা অনিয়ম দুর্নীতির কথাগুলো গণমাধ্যমে পোস্ট করে সমাজকে আরো এগিয়ে নেই। সারাক্ষণ যুক্ত থাকি গোটা বিশ্বের সাথে।


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•উপজেলা পর্যায়ে বর্ষসেরা বিজ্ঞান শিক্ষক জসীম উদ্দিন •দুই হাজার বছর আগে দিক নির্ণয়ে কম্পিউটার!
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

  • Top
    Untitled Document